টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (স্রেডা) বিদ্যুৎ বিভাগ, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২১st এপ্রিল ২০২০

ডিএসএম কর্মসূচী

প্রাথমিক গবেষণায় দেখা যায় যে, এনার্জির দক্ষতাবৃদ্ধিমূলক পদক্ষেপ হতে সাশ্রয়ের সম্ভাবনা শুধু বিদ্যূৎখাতেই ১২০০ মেগাওয়াট। গ্যাস খাতে, শিল্প বয়লার হতে ১৩ বিলিয়ন কিউবিক ফিট এবং প্রতি বছর আরো ৫০ বিলিয়ন কিউবিক ফিট গ্যাস সাশ্রয় করা যেতে পারে যদি বর্জ্যসমূহ সিএইচপি/কোজেনারেশন কর্মসূচিতে রিসাইকেল করা হয়। সরকার এনার্জির দক্ষ ব্যবহার এবং জ্বালানির হ্রাসকৃত ব্যবহার এর জন্য বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সেগুলো হল:

  • গৃহস্থালি, বানিজ্যিক ও শিল্প ক্ষেত্রে নতুন সংযোগের এনার্জি চাহিদা মেটাতে সোলার প্যানেল স্থাপন;
  • জ্বালানি দক্ষতা ও সোলার এনার্জির বিষয়গুলো অন্তর্ভূক্ত করে বিল্ডিং কোর্ড পরিমার্জন করা;
  • জ্বালানি দক্ষতা ও সোলার এনার্জির বিষয়গুলো  স্কুল,কলেজ ও মাদ্রাসার কারিকুলামে অন্তর্ভূক্ত করে শিশুদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করা।
  • সকল মন্ত্রণালয় ও পাওয়ার সেক্টর প্রতিষ্ঠানে সিএফএল বাল্ব ব্যবহার করা;
  • প্রচলিত স্ট্রিট লাইটের পরিবর্তে এলইডি ও সোলার চালিত পাওয়ার সিস্টেম ব্যবহার করা;
  • জ্বালানি সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করে তোলা;
  • শিতাতপ ব্যবস্থা ২৫% সেন্টিগ্রেড ও তাঁর উচ্চ পর্যায়ে বজায় রাখা।
  • ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতির জন্য এনার্জি স্টার রেটিং সিস্টেম চালু রাখা।
  • দোকান ও শপিংমলে নিয়ন সাইন এর ব্যবহার নিরূৎসাহিত করা;
  • সিস্টেম লস হ্রাস করতে ও বিদ্যুতের ব্যবহার কমাতে দেশব্যাপী প্রি-পেইড মিটারিং সিস্টেম ব্যবহার চালু করা।

  

 Traditional Rice parboiling system          Improved Rice parboiling system



Share with :

Facebook Facebook