Wellcome to National Portal
টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (স্রেডা) বিদ্যুৎ বিভাগ, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়
Text size A A A
Color C C C C

সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

“Training program on “Energy Efficiency and Conservation Opportunities in Energy & Mass Balance (1st Batch)” শীর্ষক প্রশিক্ষণ আয়োজিত


প্রকাশন তারিখ : 2022-09-15

টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ২০৩০ সালের মধ্যে ২০% জ্বালানি সাশ্রয়ের অভিলক্ষ্য সামনে রেখে কাজ করে যাচ্ছে। উক্ত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের উদ্দেশ্যে সুনিদিষ্ট কর্মকৌশল ভিত্তিক জ্বালানি দক্ষতা ও সংরক্ষণ সংক্রান্ত মাস্টার প্ল্যান আপটু ২০৩০ প্রণয়ন করা হয়েছে। উক্ত মাস্টার প্ল্যান এর উল্লেখিত কার্যক্রমসমূহের সুষ্ঠু বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে সরকার “জ্বালানি দক্ষতা ও সংরক্ষণ বৃদ্ধি কার্যক্রমে অর্থায়ন প্রকল্প” এর কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

 

এ প্রকল্পের অধীনে সরকারি দপ্তর/সংস্থায় জ্বালানি দক্ষতা ও সংরক্ষণ কার্যক্রম সম্প্রসারণ ও সেখানে ব্যবহৃত প্রচলিত যন্ত্রপাতিকে কিভাবে জ্বালানি সাশ্রয়ি করা যায় সেই বিষয়ে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়। সেই উদ্দেশ্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত দপ্তর ও সংস্থার কর্মকর্তাদের নিয়ে আয়োজিত প্রশিক্ষণটির ১ম ব্যাচ গত ০৬ ও ০৭ সেপ্টেম্বর দুই দিন ব্যাপী অনলাইন প্লাটফর্ম জুম এর মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়।

 

স্রেডা’র সদস্য (জ্বালান দক্ষতা ও সংরক্ষণ) জনাব ফারজানা মমতাজ এর সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণটির উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ বিভাগের মাননীয় সচিব জনাব মোঃ হাবিবুর রহমান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বর্তমান বৈশ্বিক জ্বালানি সংকটে মুহূর্তে জ্বালানির সাশ্রয়ী ব্যবহার ও সংরক্ষণই সবোর্ত্তম উপায় বলে অভিমত ব্যক্ত করে। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্রেডা’র চেয়ারম্যান (গ্রেড-১) জনাব মুনিরা সুলতানা, এনডিসি।

 

প্রশিক্ষণটির মাধ্যমে জ্বালানী দক্ষতা, সংরক্ষন এবং জ্বালানী সাশ্রয়ের গুরুত্ব সম্পর্কিত বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়। প্রশিক্ষণটির বাকি ৭টি ব্যাচ পরবর্তী ০৭ সপ্তাহে ধারাবাহিক ভাবে সম্পন্ন করা হবে।

 

প্রশিক্ষণটি জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষকগণ দ্বারা পরিচালিত হয়। আন্তর্জাতিক মানের গবেষণা প্রতিষ্ঠান Mitsubishi Research Institute, Inc. এর সহযোগিতায় আয়োজিত উক্ত প্রশিক্ষণে ৩৪ জন অংশগ্রহণকারীকে প্রশিক্ষণ শেষে সনদপত্র বিতরন করা হয়।